২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ সারা বাংলা ঠাকুরগাঁওয়ে টিউবওয়েলের পানি চলার রাস্তা বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে ২  গৃহবধূকে কুপিয়ে আহত করা হয়েছে।
১৭, অক্টোবর, ২০১৯, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ণ -
মোঃ মজিবর রহমান শেখ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি,,
ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার রুহিয়া এলাকায় টিউবওয়েলের পানি চলার রাস্তা বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে দুই গৃহবধূকে ‘কুপিয়ে’ আহত করা হয়েছে।
ঠাকুরগাঁও জেলার রুহিয়া থানার ওসি চিত্তরঞ্জন রায় জানান,  ১৬ অক্টোবর বুধবার  ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার ঢোলারহাট ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন ঐ গ্রামের ইসা হকের স্ত্রী সাবিনা বেগম (২৮) ও ইসার বড় ভাই লুৎফর রহমানের স্ত্রী রুকসানা আক্তার (৩০)। তাদের ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালের চিকিৎসক জিন্নাত পারভীন বলেন, “সাবিনার হাতে দুটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। রুকসানার মাথায় চারটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। তাদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।”
চিকিৎসাধীন সাবিনা সাংবাদিককে বলেন, বেলা ১১টার দিকে তাদের বাড়ির টিউবওয়েলের পানি যাওয়ার রাস্তা বন্ধ করে দেন প্রতিবেশী আনোয়ারী বেগম। এ নিয়ে বাগবিতণ্ডা হয়।
“এ সময় আনোয়ারী, তার স্বামী সুলতান আলীসহ তার পরিবারের লোকজন আমার স্বামী ইসা হককে মারধর করে। আমি বাধা দিতে গেলে আনেয়ারী ধারালো বশিলা দিয়ে আমার ডান হাতের কবজিতে কুপিয়ে জখম করে। আর রুকসানা আপার মাথায় কুপিয়ে জখম করে।” এ নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে অনেক দিন ধরে বিরোধ চলছে বলে তিনি জানান। এ বিষয়ে সুলতান আলীর মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি সাড়া দেননি।
 রুহিয়া থানার ওসি চিত্তরঞ্জন বলেন, ঘটনা শোনার পর পুলিশ গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।