১৮ই মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ সাহিত্য ব্যক্তিস্বাধীনতা মানুষের মৌলিক অধিকারের মধ্যে পড়ে।বাক-স্বাধীনতা,জীবন পরিচালনায় স্বাতন্ত্র্য রক্ষার
২৬, অক্টোবর, ২০১৯, ১০:০৭ অপরাহ্ণ -

বর্নার্ড সরকারঃ

ব্যক্তিস্বাধীনতা মানুষের মৌলিক অধিকারের মধ্যে পড়ে।বাক-স্বাধীনতা,জীবন পরিচালনায় স্বাতন্ত্র্য রক্ষার
স্বাধীনতাও মানুষের অধিকার হিসেবে স্বীকৃত। তবে
অধিকার ভোগের নামে কেউ যাতে সীমা লঙ্ঘন না
করে সে জন্যই সমাজ কিছু নিয়ম প্রচলন করে
দিয়েছে ন্যায়-অন্যায়,অচিত-অনুচিত,পাপ-পুণ্য,সুন্দর-অসুন্দর বলে বিভিন্ন জিনিসকে চিহ্নিত করে দেয়াটাও মানুষের জীবনকে নিয়মের মধ্যে রাখার চেষ্টার অংশ। যেমন কেউ নিজ ঘরে একাকী বিবস্ত্র থাকতে পারে কিন্তু ব্যক্তিগত স্বাধীনতার নামে যদি জনসমক্ষে উলঙ্গ হয়ে ঘুরতে থাকে নিজের ভালো লাগে বলে, তাহলে তাকে
তা করতে দেবে না সমাজ


রাস্তার ওপর দিয়ে গাড়ি চলাচলের জন্য নিয়ম বেঁধে দেয়া হয়েছে। এ নিয়মের লঙ্ঘন করে একপাশের গাড়ি অন্যাপাশে চলে গেলেই মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে। তাই সমাজের প্রচলিত নিয়মনীতি মেনে না চললে মানুষের জীবন নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়ে; সামাজিক সংহতি বিনষ্ট হয়; অপরাধ বৃদ্ধি পায়; সর্বোপরি জাতীয় উন্নতি ব্যাহত
হয়
শৃঙ্খলাই জীবন। উচ্ছৃঙ্খল ও অমিতাচারী মানুষের জীবনে কোনো সাফল্য ধরা দেয় না,অর্জিত হয় না কোনো উন্নতি। পৃথিবীর যে সব জাতি সুসভ্য ও রমৃদ্ধ বলে আজকের পরিচিতি তারা সবাই নিয়মের প্রতি অনুগত,শৃঙ্খলার অনুসরণে আন্তরিক। সভ্য দেশগুলোতে একজন মানুষও ক্রসিং ছাড়া রাস্তা পার হয় না। গভীর রাতে নির্জন রাস্তাতেও গাড়ি চালানোর
সময় ট্রাফিক সগ্যানাল মেনে চলে কর্মফাঁকি,ঘুষ,দুর্নীতি, বিলম্বে কর্ম শুরু,নির্দিষ্ট সময়ের আগেই কাছ গুছানো তারা জানে না। আজ আমাদের দেশ ও সমাজের বুকে কোনো উজ্জ্বল ভাবমূর্তি গড়ে
তুলতে পারে নি,তার পিছনে রয়েছে আমাদের মধ্যে
নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলার চেতনার অভাব
সময় ও অবস্থানের সামান্য হের ফের হলে মহাবিশ্বে মহাবিপর্যয় সৃষ্টি হবে। পৃথিবীর অস্তিত্বও হয়ে পড়বে বিপন্ন। নির্দিষ্ট সময়ের পরিধিতে দিবারাত্রি সংঘটিত হচ্ছে। ঋতু পরিক্রমা, ঋতুভেদে আবহাওয়ার রূপ পরিবর্তন, বৃক্ষকুলের ফলদান,ফুল ফোটানো প্রভৃতিতে কোনোদিন নিয়ম লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটে না। মানুষ ও প্রাণিকুলের জন্ম,বৃদ্ধি, পরিপূর্ণতা ও পরিণতি চলছে
একই নিয়মে
বহু দেশ দেখিয়াছি বহু নদ-দলে,কিন্তু এ স্নেহের তৃষ্ণা মিটে কার জলে? দুগ্ধ-স্রোতোরূপী তুমি জন্মভুমি-স্তনে।
এমন স্নিগ্ধ নদী কাহার, কোথায় এমন ধূম্র পাহাড়; কোথায় এমন হরিৎক্ষেত্র আকাশতলে মেশে। এমন ধানের ওপর ঢেউ খেলে যায় বাতাস কাহার দেশে।
আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালোবাসি সবার ছোট ছেলের হাতের লিখা দেশের-চিত্রটির
ছেলের নাম,পবিত্র সরকার