২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ সারা বাংলা মানুষ হত্যা করে কখনও মহৎ কিছু অর্জন করা যায় না- ডিএমপি কমিশনার
৩, নভেম্বর, ২০১৯, ৩:৩৪ অপরাহ্ণ -

সেলিম মিয়াঃ

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার) বলেছেন, শর্টকাট বেহেস্তে যাওয়ার প্রলোভনে মানুষ হত্যা করে কখনও মহৎ কিছু অর্জন করা যায় না।

(২ নভেম্বর) বিকাল ৪টায় শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে মাদক, জঙ্গিবাদ ও র‌্যাগিং বিরোধী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন ডিএমপি কমিশনার।

মাদক সেবন করে কেউ বড় হতে পারে না উল্লেখ করে শিক্ষার্থীদের কমিশনার বলেন, বর্তমান নিয়মানুযায়ী সরকারি চাকরিতে ঢুকতে হলে ডোপ টেস্ট বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ডোপ টেস্টে পজিটিভ হলে তুমি সরকারি চাকরি পাবে না। তুমি কখনও যদি মাদক সেবন করে থাকো, তাহলে তা গোপন করা কঠিন। আমাদের এমন সক্ষমতা রয়েছে যে, কবে কি মাদক তুমি সেবন করেছ তার তথ্য মেশিনের মাধ্যমে চলে আসবে। সুতরাং সাবধান, মাদক সেবন করবে না। যে মাদকের সাথে আছে তার বিপক্ষে তোমরা দাঁড়াও। আমরা তোমাদের পাশে আছি। তোমাদের বন্ধুদের কাছে মেসেজ দিয়ে দেও যে মাদক সেবন করলে বাংলাদেশে সরকারি চাকরি পাবে না।

কেউ শর্টকাট বেহেস্তে যাওয়ার দাওয়াত নিয়ে আসলে পুলিশকে জানানোর অনুরোধ জানিয়ে কমিশনার আরো বলেন, যারা বেশি নামাজী তাদেরকে টার্গেট করে জঙ্গিবাদ প্রচারকারীরা। যারা কুরআন ও হাদিসের খন্ডিত ব্যাখা দিয়ে শর্টকাট বেহেস্তে নিতে চাই, তাদের থেকে সাবধান। এমন কিছু হলে আমাদের জানান।

র‌্যাগিংয়ের নামে এক সহপাটি অন্য সহপাটিকে নির্যাতন করা মোটেও ঠিক না মন্তব্য করে কমিশনার বলেন, আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রাক্তন ছাত্র। আমরা যখন এখানে পড়তাম, আমাদের বড় ভাইরা পড়াশোনায় খুব সাহায্য করেছেন। বর্তমানে এই ব্যাপারটা তেমন হয় না। কারও আদর্শবাদের সাথে অন্যকারও মিল না থাকলে তাকে পিটিয়ে মেরে কি আদর্শ শিখানো যাবে? কখন তা যাবে না। বুয়েটে যারা পড়ে তারা সবাই অত্যন্ত মেধাবী। আবরার হত্যায় গ্রেফতারকৃতদের অনেকে অত্যন্ত গরীব পরিবারের সন্তান। তাদের নিয়ে বাবা-মায়ের অনেক স্বপ্ন ছিল। তোমাদের প্রতি অনুরোধ থাকবে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান যেন তোমাদের নিজের হাতে নষ্ট না হয়। সবসময় মনে রাখবা মা-বাবা অনেক কষ্ট করে স্বপ্ন নিয়ে তোমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে পাঠিয়েছে। বড়দের প্রতি শ্রদ্ধাবোধের জায়গা কখনও নষ্ট করবে না। সকলের সাথে ভালো ব্যবহার দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি এগিয়ে নিবে। আমি যাতে জোড় গলায় বলতে পারি আমার বিশ্ববিদ্যালয় জঙ্গি, মাদক ও র‌্যাগিং মুক্ত।

বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ এর অতিরিক্ত আইজিপি মীর শহীদুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম (বার) বলেন, ভবিষ্যতে যে যেই পেশায় যাও না কেন, সবসময় মানুষকে সেবা করবা। তোমার জন্য তোমার বাবা-মা যেন গালি না খায়। মা-বাবা অনেক কষ্ট করে তোমাদের এ পর্যায়ে এনেছে। তোমাদের নিয়ে তাদের অনেক স্বপ্ন রয়েছে। এমন কিছু করো না, যাতে তাদের সব স্বপ্ন ভেঙ্গে যায়।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. কামাল উদ্দিন আহাম্মদ সভাপতির বক্তব্যে বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই কৃতি শিক্ষার্থী ও কৃষিবিদ মোহাঃ শফিকুল ইসলাম ও মীর শহিদুল ইসলাম আমাদের মাঝে উপস্থিত থাকায় আমরা গর্বিত। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও র‌্যাগিং প্রতিরোধ সংক্রান্তে ২টি কমিটি কাজ করছে। আমরা প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীদের মোটিভেট করছি। এই প্রতিষ্ঠানে অতীতে কোন দুর্নাম ছিল না, এখনও নেই এবং ভবিষৎতেও থাকবে না।

উল্লেখ্য, ডিএমপি কমিশনার মোহাঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার) একজন কৃষিবিদ ও স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি) প্রধান অতিরিক্ত আইজিপি মীর শহীদুল ইসলাম বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) তিনিও একজন কৃষিবিদ। তাঁরা দুইজনই শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র। উক্ত অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে এই দুইজন কৃষিবিদকে সংবর্ধনা প্রদান করেন উপাচার্যসহ অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ।

ডিএমপি কমিশনার (ফাইল ছবি) তথ্য, ডিএমপি নিউজ