২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ বিশেষ সংবাদ, লাইফস্টাইল ময়মনসিংহে সদরে জনবান্ধব ইউএনও শেখ হাফিজুর রহমান।।
৮, নভেম্বর, ২০১৯, ৮:০৯ অপরাহ্ণ -

মারুফ হোসেন কমলঃ

দুর্নীতি ,অনিয়ম-অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী কন্ঠস্বর ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সুযোগ্য নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান । তার সততায় ও কর্তব্যপরায়নায়তায় উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। বাল্য বিবাহ রোধ, অবৈধ ড্রেজার বন্ধ , মাদক-জুয়াসহ সকল ধরনের অপকর্ম প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রে তিনি একজন দায়িত্ববান কর্মকর্তা। তার মত জনবান্ধব প্রসাশক পেয়ে সত্যিই ময়মনসিংহ সদরবাসী ধন্য।

এক্ষেত্রে ময়মনসিংহ উন্নয়ন পরিষদের একজন সংগঠক বলেন একজন রোগীর যতই কঠিন রোগ হউক না কেন, তাকে যদি ডাক্তার শুধু বলেন, আপনার ভয়ের কিছু নেই, আপনার তেমন কিছু হয়নি, এই ঔষুধ গুলো খেলেই আপনি ভালো হয়ে যাবেন। এমনটা একজন রোগীকে বললে রোগীর ৮০% রোগ ভাল হয়ে যায়।
তেমনি করে একজন প্রসাশনের কর্তাব্যক্তির কাছে যদি কোন অসহায় লোক আইনের আশ্রয় নিতে যায়, আর তিনি যদি আশস্ত করে তাকে এবং সে অনুযায়ী কাজ করে,তাহলে মানুষ প্রশাসনের উপর বিশ্বাস করবে, ভরসা করবে। তেমনই ভরসা করা যায় এমন একজন ব্যক্তির উপর আর তিনি হচ্ছেন ময়মনসিংহ সদরের চৌকস উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ হাফিজুর রহমান । জনবান্ধব অফিসার হিসাবে যে কোন মানুষের সমস্যায় এগিয়ে আশার ফলে উপজেলার প্রতিটি মানুষ তাকে অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি মানুষকে নোংরা মানসিকতা পরিহার করে দুর্নিতী ও অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর আহবান জানিয়ে নিরলস কর্মতৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন ঘুনেধরা সমাজকে বদলানোর জন্য।

সকালে বাসা থেকে বের হয়ে অফিস সামলিয়ে তিনি উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামেও সমতসলে দৌড়াচ্ছেন জনগণের সমস্যা সমাধানে, কখনও গভীর রাতে বাসায় ফিরছেন জনগণের জন্য কাজ করে। অন্যায়ের সাথে কখনো আপোষ করেন না তিনি।
শুধু মাত্র মাদক নয় যেকোন অপরাধের বিরুদ্ধে তিনি প্রতিবাদী।
তিনি সরকারের প্রতিটি সেবাকে জনকল্যাণে পৌছে দিতে প্রতিটি ইউনিয়নে অবস্থিত প্রতিটি ভূমি অফিস,ইউনিয়ন পরিষদ,প্রতিটি ওয়ার্ডে অবস্থিত কমিউনিটি ক্লিনিকের কার্যক্রম নিয়মিত তদারকি করছেন। অপরাধী যতবড় ক্ষমতাশালীই হউক জনস্বার্থে তিনি কখনও চাকরী চলে যাওয়ার ভয়ে অপরাধীর সাথে আপোষ করেন না। তিনি ময়মনসিংহ সদর উপজেলার একজন সৎ মেধাবী ও দক্ষ উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসেবে নিজেকে পরিচিত করতে সমর্থ হয়েছেন। স্বচ্ছ ও দুর্নীতিমুক্ত জনপ্রশাসনকে জনগণের দোড়গোড়ায় পৌছাতে কাজ ইউএনও শেখ হাফিজুর রহমান অনন্য ভূমিকা রাখঢ়েন।
পরিশ্রমী ও জনবান্ধব ইউএনও শেখ হাফিজুর রহমান গত২০১৮সালের ১২ই জুলাই ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় যোগদান করেন। তার যোগদানের পর থেকে সদরের বিভিন্ন ইউনিয়নে সরকারের বরাদ্ধ প্রকল্পগুলোতে তদারকির ফলে প্রকল্পগুলোর স্বচ্ছতা ফিরে এসেছে বলে দাবী উপজেলার সচেতন জনগণের। দুর্নীতিরর বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ায় যে কেউ দুর্নীতি করার ইচ্ছা করলেও শেষপর্যন্ত ইউএনও’র আতঙ্কে দুর্ণীতি করার সাহস পায়না।

তিনি ময়মনসিংহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে দায়িত্ব পালনের পর থেকে বাল্যবিবাহমুক্ত উপজেলা গড়তে অভিযান চালিয়ে অসংখ্য বাল্যবিবাহ বন্ধ করে আলোচনার স্থান দখল করেছেন।
গরীব -মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষা গ্রহণের সুবিধা প্রদানেও তিনি অশেষ ভূমিকা রেখেছেন।

সম্প্রতি তিনি ময়মনসিংহ বাসীকে অগ্নিকান্ডের হাত থেকে রক্ষার লক্ষ্যে বহুতল ভবন গুলোতে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রপাতি মজুদ আছে কিনা, ভবনের নকশা অনুযায়ী ভবন নির্মাণ হয়েছে কিনা, বিদ্যুৎ-গ্যাস সংযোগের স্বচ্ছতার লক্ষ্যে সচেতনতামূলক ধারাবাহিক অভিযান পরিচালনা করে ময়মনসিংহবাসীর মাঝে আরো ব্যাপক আলোচনার স্থান করে নিয়েছেন।
বিভিন্ন হাট,বাজারে ভেজাল অভিযান পরিচালনা করা সহ, ইউনিয়ন ভুমি অফিস, কমিউনিটি ক্লিনিক গুলো দুর্ণীতিমুক্ত করে জনগণের প্রকৃত সেবা কেন্দ্রে পরিণত করতে ইউএনও’র নিয়মিত পরদর্শন ও অভিযানে সাধারণ জনতার নাঝে স্বস্থি ফিরে এসেছে।তার মতো জনবান্ধব মেধাবী ডেডিকেটেড কর্মকর্তা সকল ক্ষেত্রে পদায়ন হলে সরকারের এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সহজ হবে বলে মনে করেন বিজ্ঞজনরা।