১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ গণমাধ্যম, সারা বাংলা রাঙ্গাকে ক্ষমা চাইতে হবে || নুর হোসেনের মা
১১, নভেম্বর, ২০১৯, ৯:২৮ অপরাহ্ণ -

তথ্য প্রতিদিন ডেস্ক – স্বৈরাচারবি’রোধী আন্দো’লনের কর্মী শ’হীদ নূর হোসেনকে ‘ইয়া’বাখোর’, ‘ফেন’সিডিলখোর’ বলায় জাতীয় পা’র্টির (জা’পা) মহাস’চিব মসিউর রহমান রাঙ্গাকে জনগণের কাছে ক্ষ’মা চাইতে বলেছেন নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবি।

সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেস’ক্লাবের সামনে রাঙ্গার বক্তব্যের প্রতি’বাদে অ’বস্থান কর্ম’সূচি পালন করেছে নূর হোসেনের পরিবার।

অব’স্থান কর্ম’সূচিতে মরিয়ম বিবি বলেন, নূর হোসেন আমার একার ছেলে না, সে জনগণের ছেলে। সে জনগণের ছেলেকে নেশা’খোর বলছে। সে যদি নেশা’খোর হতো, তাহলে দেশের জন্য জা’ন দিতে পারতো না। আমি জনগণের কাছে বি’চার চাই, আল্লাহর কাছে বি’চার চাই।

অশ্রু’সিক্ত কণ্ঠে তিনি বলেন, আমার ছেলে বুকে-পিঠে লেখে রাজ’পথে নামলো দেশের জন্য, জনগণের জন্য। কীসের জন্য নামলো? ও কি পা’গল ছিল, ওর কি জ্ঞান, বিচার ছিল না? আজ ৩০ বছর পরে ওরে নেশা’খোর বলা হলো। আমি এ বিচা’রের দায়’ভার জনগণের ওপর ছে’ড়ে দিলাম। জনগণের কাছে তাকে (মসিউর রহমান রাঙ্গা) ক্ষ’মা চাইতে হবে।*

রাঙ্গার বিরু’দ্ধে মা’মলা করবেন কি-না এ প্রশ্নের জ’বাবে মরিয়ম বলেন, আমি আমার ছেলেকে বলেছি, মাম’লা করা উচিত। আমি মা’মলা করতে রাজি আছি।

অ’বস্থান কর্মসূ’চিতে নূর হোসেনের ভাই আলী হোসেন বলেন, আমার ভাইকে দেশের জনগণ ভালোবাসে, শ্রদ্ধা জানায়। সে নূর হোসেনকে ‘ই’য়াবাখোর’, ‘ফেন’সিডিলখোর’ বলা হলো কেন? ৩৩ বছর আগে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আমাদের বাসায় গিয়ে আমার বাবার কাছে ক্ষ’মা চেয়ে এসেছিলেন। তিনি সংস’দেও ক্ষ’মা চেয়েছিলেন। আমরা তো ক্ষ’মা করেই দিয়েছিলাম, কেন ৩৩ বছর পর আবার সে পুরোনো ক্ষ’তে আ’ঘাত করা হলো?*

সাংবাদিকদের উদ্দে’শে তিনি বলেন, আপনারাই বলেন, তখন কি দেশে ইয়া’বা ছিল? ফেন’সিডিল ছিল?
আলী হোসেন বলেন, নূর হোসেন দেশের জন্য, জনগণের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য আত্মা’হুতি দিয়েছিল। সে জনগণের কাছেই আমরা বি’চার চাই।*
*মা’মলার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, পরিবারের সবাই এখনও বসি নাই। পরিবারের অন্য মুরু’ব্বিরা বসে সিদ্ধা’ন্ত নেবো।

অবস্থান কর্ম’সূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন- নূর হোসেনের ভাই দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন, বোন শাহানা বেগমসহ পরিবারের অন্য সদ’স্যরা।*
*গতকাল রবিবার জা’পার মহানগর উত্তর শাখার আয়ো’জনে ‘গণতন্ত্র দিবস’ উপলক্ষে আয়ো’জিত আ’লোচনা সভায় রাঙ্গা বলেন, নূর হোসেন ‘ইয়া’বাখোর’, ‘ফেন’সিডিলখোর’ ছিলেন।*
*এরপর থেকেই দেশব্যাপী সমা’লোচনার ঝ’ড় বইয়ে যায়। সামাজিক যোগা’যোগ মা’ধ্যমেও রাঙ্গার বি’চার চায় সাধারণ জনগণ। তবে এ বিষয়ে রাঙ্গা আনুষ্ঠা’নিকভাবে এখনও ম’ন্তব্য বা বিবৃ’তি দেননি।