২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রচ্ছদ সারা বাংলা কাস্টমস হাউস ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিমের অভিযানে শাহজালালে স্বর্ণ সহ বিমান কর্মী আটক।
২৪, নভেম্বর, ২০১৯, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ -

সেলিম মিয়াঃ

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কাস্টম হাউস, ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিম কর্তৃক প্রায় ৩ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যের ৭ কেজি ১৯০ গ্রাম স্বর্ণসহ বিমান কর্মী ও বিমান আটক

কাস্টম হাউস, ঢাকার প্রিভেন্টিভ টিম কর্তৃক হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রায় ৩ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যের ৭ কেজি ১৯০ পেল গ্রাম স্বর্ণসহ একজন বিমান কর্মী ও বিমান আটক করা হয়েছে। কমিশনারের নিকট আসা এক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চোরাচালান প্রতিরোধে কাস্টম হাউস, ঢাকার কর্তব্যরত প্রিভেন্টিভ কর্মকর্তাগণ বিমান বন্দরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান গ্রহণ করে নজরদারী করতে থাকে। নজরদারী ও তল্লাশীর একপর্যায়ে বোর্ডিং ব্রিজ নং-৬ এ সকাল ৬.১০ টায় অবতরনকৃত দুবাই থেকে আগত বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট নং-BG048 এর সীট নং-15 F এর নিচে সুকৌশলে লুকানো অবস্থায় ৪০ টি স্বর্ণবার পাওয়া যায়, যার মোট ওজন ৪ কেজি ৬৪০ গ্রাম। অপরদিকে বিকাল ৩ঃ০০ ঘটিকায় আমদানি কার্গো কমপ্লেক্সের বহিরাংশ সংলগ্ন রানওয়ে এলাকায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের Aircraft Technical Helper মোঃ মেহেদি হাসানের গতিবিধি সন্দেহজনক হওয়ায় প্রিভেন্টিভ কর্মকর্তাগণ তাকে চ্যালেন্জ করেন। পরবর্তীকে তাকে কাস্টমস ব্যাগেজ কাউন্টারে আনা হয় এবং বিমান বন্দরে কর্মরত বিভিন্ন সংস্থার প্রতিনিধির উপস্থিতিতে তার শরীর তল্লাশী করা হলে তার কোমরে লুকানো কালো স্কচটেপ দ্বারা মোড়ানো ২ টি বান্ডিলে ২২ টি স্বর্ণবার পাওয়া যায়, যার মোট ওজন ২ কেজি ৫৫০ গ্রাম। আটককৃত স্বর্ণের সর্বমোট ওজন ৭ কেজি ১৯০ গ্রাম এবং আনুমানিক বাজার মূল্য ৩ কোটি ৬০ লক্ষ টাকা।

স্বর্ণ বহনকারী বিমান আটক করা হয়েছে এবং স্বর্ণ বহনকারী বিমান কর্মীকে পুলিশে সোপর্দকরণের প্রক্রিয়া চলছে। তাছাড়া, আটককৃত স্বর্ণের বিষয়ে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।